আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্ট্রের সব অহংকার মিশিয়ে দিয়েছে ‘এক ঘটনা’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:যুক্তরাষ্ট্র এত দিন বিশ্বের বিভিন্ন দেশকে গণতন্ত্রের সবক দিয়ে আসছিল, সেই যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রই এখন হুমকির মুখে।

সংবাদমাধ্যমে বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানায়, পার্লামেন্ট ভবন ক্যাপিটল হিল আক্রান্ত হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে তির্যক বাক্যবাণে বিদ্ধ করছেন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানরা।
তীব্র সমালোচনা করে লেবাননের হিজবুল্লাহ প্রধান হাসান নাসরাল্লাহ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে বেয়াদব এবং হত্যাকারী হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন।
হিজবুল্লাহ প্রধান হাসান নাসরাল্লাহ বলেন, বুধবারের ঘটনাতেই যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রের আসল পরিচয় বেরিয়ে এসেছে। এমন নোংরা গণতন্ত্রই তারা বিশ্বে ছড়িয়ে দিতে চায়। ট্রাম্প প্রতিনিয়তই ক্ষমতার জন্য মানুষ হত্যা করে যাচ্ছেন।
ক্যাপিটল হিলের ঘটনাকে গণতন্ত্রের জন্য অপমানজনক হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান।
এরদোয়ান বলেন, আমেরিকা এবং তাদের গণমাধ্যম সবসময়ই গণতন্ত্রের অজুহাতে অন্য দেশের অভ্যন্তরীণ ইস্যুতে কথা বলতে পছন্দ করে। কিন্তু এখন তারা নিজেরাই গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রে সহিংসতার জন্য প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে দায়ী করেছেন ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো। এর মাধ্যমে মার্কিনদের আসল পরিচয় উন্মোচিত হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
ট্রাম্পের আচরণকে শিশুসুলভ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন ইরানিরা। আর ক্ষমতা না ছাড়তে এবং এবং ক্যাপিটল হিলের বুধবারের ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রের মিথ্যা এবং লোক-দেখানো গণতন্ত্রের উদাহরণ হিসেবে আখ্যা দিয়েছে ইরাক।
আপনার মন্তব্য লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
%d bloggers like this: