আন্তর্জাতিক

ইউরোপে মার্কিন মডার্নার টিকা অনুমোদন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার পর এবার ইউরোপীয় ইউনিয়ন অনুমোদন দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মডার্নার তৈরি টিকা। অন্য ভ্যাকসিনের তুলনায় মডার্নার টিকার দাম অনেক বেশি হলেও সংরক্ষণ সহজ।

বায়োএনটেক এবং ফাইজারের তৈরি প্রাণঘাতী করোনার ভ্যাকসিনের পর ইউরোপের ২৭টি দেশে মডার্নার তৈরি টিকার অনুমোদন দিয়েছে ইউরোপীয় মেডিসিন এজেন্সি ইএমএ।
ইইউ মডার্নার সাথে আপাতত মাত্র ১৬ কোটি ডোজের চুক্তি করলেও মৃত্যু ঠেকাতে এই মুহূর্তে এই টিকা কার্যকর বলছেন কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লেন। যদিও অক্সফোর্ড ও সুইডিশ ফার্মাকোম্পানি অ্যাস্ট্রাজেনেকা তৈরি টিকার দামের সাথে তুলনা করলে সেটি অনেকখানি বেশি।
অক্সফোর্ডের টিকার প্রতিডোজ কিনতে ইইউ যেখানে দিচ্ছে বাংলাদেশি টাকায় ১৭৮ টাকা, বায়োএনটেক ও ফাইজারের জন্য ১ হাজার ২শ’ টাকা সেখানে মডার্নার টিকার জন্য দিতে হচ্ছে ১ হাজার চারশ’ ৬৯ টাকা। দাম একটু বেশি হলেও সংরক্ষণে নেই কোন ঝামেলা। মাইনাস ২০ডিগ্রিতে রাখা যাবে কমপক্ষে ৩০ দিন। অনুমোদনে খুশি জার্মানির সাধারণ নাগরিকরা।
‘মডার্নার টিকার অনুমোদনে ইইউর সিদ্ধান্তটা চমৎকার, স্বাগত জানাই। কারন বায়োএনটেকের টিকার মতো ৭০ ডিগ্রি হিমাঙ্কের নিচে টিকা রাখা মুশকিল সেখানে মডার্নার টিকা রাখা যাবে মাত্র মাইনাস ২০ গ্রেডে। আর কি চাই বলুন, তাই করোনা থেকে বাঁচতে ও মৃত্যু ঠেকাতে মর্ডানার টিকা ভাল হবে আশা করি।’
৯৫ শতাংশ কার্যকরী মডার্নার এই টিকার তৃতীয় ধাপে পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়েছে ৩০ হাজারের বেশি স্বেচ্ছাসেবীর শরীরে। গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা না গেলেও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ব্যাথায় ভুগেছেন অনেকে।
‘আমি মনে করি শরীরে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতার মাধ্যমে করোনা সেরে যাবে। এছাড়া তড়িঘড়ি করে বানানো টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকতে পারে।’
‘আমি জানিনা টিকা নেয়া ঠিক হবে কিনা, আমার মত অনেকেই টিকা নিতে ভয়ও পাচ্ছে।’
এদিকে জার্মানিতে টিকা প্রদান অব্যাহত থাকলেও সমানতালে বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। এখন পর্যন্ত সর্বমোট মৃতের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৩৭ হাজারের কাছে।
আপনার মন্তব্য লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
%d bloggers like this: